Dhaka Metro Rail Online Ticket Price list 2022 [মেট্রোরেল উদ্বোধন ]

[মেট্রোরেল উদ্বোধন ] Dhaka Metro Rail Online Ticket Price list

রাজধানী ঢাকায় মেট্রোরেল প্রকল্প চালু হলে উত্তরা থেকে কমলাপুর পর্যন্ত মাস র‍্যাপিড ট্রানজিট (এমআরটি) রুট-৬’এ প্রতি কিলোমিটারে ভাড়া ২ টাকা ৪০ পয়সা নির্ধারণের বিবেচনা করছে ঢাকা মাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল)। এই ভাড়ার পরিমাণের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলে ২০.১ কিলোমিটারের এ রুটে মোট ভাড়া আসবে ৪০ টাকা ২৫ পয়সা।

২০২২ সালেই রাজধানীতে দেশের প্রথম মেট্রোরেল চালু হবে বলে আশা করা হচ্ছে। সকাল ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত প্রতি ঘণ্টায় এ গণপরিবহনে ৬০ হাজার যাত্রী যাতায়াত করবে। প্রতিদিন মেট্রোরেল ব্যবহারকারী মোট যাত্রীর পরিমাণ দাঁড়াবে ৯  লাখ ৬০ হাজার।    

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, মেট্রোরেল প্রকল্প প্রতিদিন চালাতে খরচ হবে ২ কোটি ৩৩ লাখ টাকার মতো। প্রতিদিন যদি ৪ লাখ ৮৩ হাজার মানুষ এই রেলসেবা ব্যবহার করে তাহলে খরচ উঠে আসবে।  

খুব শিগগিরই ভাড়া চূড়ান্তভাবে নির্ধারণের জন্য একটি কমিটি বৈঠকে বসবে। 

এ বিষয়ে ওই কমিটির আহ্বায়ক ও ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের নির্বাহী পরিচালক খন্দকার রাকিবুর রহমান বলেন, মেট্রোরেল পরিচালনা খরচ ও ভাড়ার মোটামুটি একটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ডিএমটিসিএল ভাড়া নিয়ে একটি খসড়া প্রস্তুত করার জন্য বলেছে। 

ঢাকা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, প্রস্তাবনা বিবেচনা করে ভাড়া নির্ধারণ করা হবে এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। 

Dhaka Metro Rail Online Ticket Price list


ভাড়া নির্ধারণে প্রভাব ফেলবে যেসব বিষয়

ভাড়া নির্ধারণের ক্ষেত্রে প্রকল্প খরচ, প্রশাসনিক খরচ ও রক্ষণাবেক্ষণ খরচসহ বিভিন্ন বিষয় মাথায় রাখছে কমিটি। মতিঝিল থেকে উত্তরার দূরত্ব, যাত্রীর সংখ্যা, রেলের দৈনিক চলাচলের মোট সময়, ধারণক্ষমতার হার এবং স্টেশনের মধ্যবর্তী দূরত্বও বিবেচনায় রাখা হচ্ছে।

এমআরটি-৬’এর অতিরিক্ত প্রকল্প পরিচালক (ফিন্যান্স অ্যান্ড অ্যাডমিন) মুহাম্মদ আবদুর রউফ বলেন, “ভাড়া যেন সবার জন্য সহনীয় পর্যায়ে থাকে সেজন্য আমরা যাত্রীদের আয়ের  বিষয়টিও বিবেচনা করবো।

ধারণা করা হচ্ছে, মেট্রোরেল পরিচালনা করতে প্রতিদিন ২ কোটি ৩৩ লাখ টাকা খরচ হবে, অর্থাৎ প্রতি মাসে মোট খরচ দাঁড়াবে ৬৯ কোটি ৯১ লাখ।   


অন্য গণপরিবহনের তুলনায় মেট্রোরেলের ভাড়া 

বর্তমানে যাত্রীদের কাছ থেকে বাস প্রতি কিলোমিটারে ১ টাকা ৭০ পয়সা এবং মিনিবাস ১ টাকা ৬০ পয়সা করে ভাড়া নেয়। এ হিসাবে উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ভাড়া আসে ৩০ টাকা মতো। এই ভাড়া মেট্রোরেলের জন্য প্রত্যাশিত ৪৮ টাকা ২৫ পয়সার তুলনায় বেশ কম, যদিও বাসকে এই পথ পাড়ি দিতে দ্বিগুণ দূরত্ব অতিক্রম করতে হয়।  উত্তরা থেকে কমলাপুরে যেতে মেট্রোরেলে সময় লাগবে মাত্র ৪০ মিনিট। 

এ বিষয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) অধ্যাপক ড. শামসুল হক বলেন, ভাড়া কম রাখার জন্য বিভিন্ন দেশে মেট্রোরেলে সরকারি ভর্তুকি থাকে। এর মাধ্যমে রেলের সূষ্ঠু পরিচালনা এবং যাত্রীদের বাস ছেড়ে মেট্রোরেল ব্যবহারের প্রবণতা বৃদ্ধি নিশ্চিত করে। ভাড়া যদি বাসের দ্বিগুণ হয়, তাহলে রেল ব্যবহারে বাসযাত্রীরা আগ্রহী হবে না। 

মেট্রোরেল প্রকল্পের মোট খরচ ধরা হয়েছে ২১,৯৮৫.০৭ কোটি টাকা। এর মধ্যে প্রকল্প সহায়তা হিসাবে জাইকা দেবে ১৬,৫৯৪.৫৯ কোটি টাকা। ২০১৬ সালের ২৬ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রকল্পের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন। ২০২১ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত মেট্রোরেলের কাজ এগিয়েছে ৫৬.৯৪ শতাংশ। গত ৩ জানুয়ারি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ২০২২ সালের জুনের মধ্যেই শেষ হবে মেট্রোরেলের কাজ। 


প্রতিবেশী দেশগুলোতে ভাড়া

ভারতে ১০টি মেট্রোরেল প্রকল্প সরকারি অনুদানে চলে। এরমধ্যে মুম্বাইয়ের যাত্রীদের সর্বোচ্চ এবং কলকাতার যাত্রীদের সর্বনিম্ন ভাড়া দিতে হয়। 

২৭.২২ কিলোমিটারের কলকাতা মেট্রো ভারতের সবচেয়ে পুরোনো। পাশাপাশি এটি দেশটির সবচেয়ে ব্যস্ত ও সস্তা গণপরিবহন। শহরটির যাত্রীরা ২-৫ কিলোমিটার ভ্রমণ করতে ভাড়া দেয় ১০ রুপি এবং ২০-২৫ কিলোমিটার ভ্রমণ করতে ভাড়া দেয় ২৫ রুপি। বাংলাদেশে যার মূল্য দাঁড়ায় ১১ টাকা ৭০ পয়সা এবং ২৯ টাকা ২৫ পয়সা।  

মুম্বাইতে দেশটির সবচেয়ে ব্যয়বহুল মেট্রোরেলের যাত্রীরা ০-২ কিলোমিটার ভ্রমণ করতে ভাড়া দেয় ২০ রুপি এবং ২০-২৫ কিলোমিটার ভ্রমণ করতে ভাড়া দেয় ৮০ রুপি।

অপরদিকে পাকিস্তানের পাঞ্জাবে ২৫.৫৮ কিলোমিটার লাইনের মেট্রোরেলের জন্য যাত্রীদের ভারা দিতে হয় ৪০ রুপি (৪৬.৮০ টাকা)। তবে এই ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.