১০০০+ ফুলের ছবি ফুলের পিক Download করুন

১০০০+ ফুলের ছবি ফুলের পিক Download করুন.fuler chobi downloadফুলের ছবি ১০০০+ ফুলের পিক Download করুন

বিভিন্ন দেশের জাতীয় ফুল, বিশ্বের দূর্লভ কিছু ফুল, পিকচার ডাউনলোড, নতুন ফুলের ছবি, ফুলের ছবি ডাউনলোড, অসাধারণ কিছু ফুলের ছবি, গোলাপ ফুল, গোলাপ ফুলের ছবি, লাল গোলাপ ফুলের ছবি, হলুদ গোলাপ ফুলের ছবি, সাদা গোলাপ ফুলের ছবি, সবুজ গোলাপ ফুলের ছবি, শাপলা ফুলের ছবি, লাভ ফুলের ছবি, অর্কিড ফুলের ছবি, টগর ফুল, রজনীগন্ধা ফুলের ছবি, কৃষ্ণচূড়া ফুলের ছবি, পদ্ম ফুলের ছবি, সূর্যমুখী ফুলের ছবি, বেলি ফুলের ছবি ডাউনলোড আরো অনেক ফুলের তথ্য পাবেন আমাদের এই আর্টিকেলে। তাই সম্পূর্ণ পোষ্টটি পড়ার অনুরোধ জানাচ্ছি। আশা করছি, ফুলের ছবি (Fuler pic) ও ফুলের নামসহ তালিকা পোষ্টটি পড়ে আপনারা উপকৃত হবেন।

ফুলের ছবি download

ফুলের ছবি প্রয়োজন? ফুলের ছবি download করতে চান? এখানে পাবেন সুন্দর গোলাপ ফুলের ছবি।অনেকেই ফেসবুকে ফুলের পিক আপলোড করতে চান। এজন্য ইন্টারনেট থেকে নিজের পছন্দের ফুলের ছবি ডাউনলোড করে নিতে হয়। আপনার জন্য এখানে রয়েছে অসংখ্য ফুলের ছবি গোলাপ
প্রিয়জনকে ফেসবুক মেসেঞ্জার বা হোয়াটস অ্যাপে সুন্দর সুন্দর গোলাপ ফুলের ছবি hd উপহার দিতে চান? তাহলে এখান থেকেই আকর্ষণীয় সব গোলাপ ফুলের ছবি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

ফেসবুক প্রোফাইল পিকচারের জন্যও আমরা অনেকেই গোলাপ ফুলের ছবি চাই
ফুলের ছবি ও নাম চাই ? এখানে বিশাল ভান্ডার থেকে ডাউনলোড করে নিন আপনার পছন্দের ফুলের ছবি

এই অসম্ভব সুন্দর সুন্দর সব ফুলের পিক আপনার মন কাড়বেই। তবে ফুলের ছবিগুলো প্রফেশনাল গ্রাফিক ডিজাইনারের মাধ্যমে কাজ করা। এতে ছবিগুলো হয়েছে আরও আকর্ষণীয়।

ফুলের ছবি, নাম ও পরিচিতি

ফুলের ছবি ডাউনলোড করার পাশাপাশি এখানে পাবেন ফুলের ছবি ও নাম, ফুলের পরিচিতি।পৃথিবীতে কত যে সুন্দর সুন্দর ফুল রয়েছে তার সবগুলো কি আমরা চিনি?পৃথিবীর কথা বাদই দিলাম আমাদের বাংলাদেশেই যে সব ফুল জন্মে তার সবগুলোই কি আমাদের পরিচিত?দেখা যাবে বাস্তবে ঘুরে ফিরে কয়েকটি ফুলই আমরা চিনি মাত্র!বেশিরভাগ ফুলই আমাদের অপরিচিত।দেখলেও নাম বলতে পারবোনা।

আসুন আমার মতো যারা ফুল ভালবাসেন আমরা বেশ কিছু ফুলের পরিচিতি জেনে নিই।ফুল পছন্দ করেননা এমন মানুষ নিশ্চয়ই কমই আছেন।তাহলে চলুন সচরাচর আমাদের চোখে পড়ে এমন কমন ফুল থেকেই আমাদের ফুলের পরিচয় পর্ব শুরু করা যাক!

গোলাপ ফুলের নতুন ছবি

গোলাপ ফুল সবসময়ই সবার পছন্দের ফুল। অনেকেই নিজের মনের কথা গোলাপ দিয়ে প্রকাশ করে। আমাদের সবার মোবাইল ফোনে কিছুনা কিছু গোলাপ ফুলের ছবি পাওয়া যাবে। গোলাপ প্রেমীদের জন্য আমি এখানে নিয়ে আসছি কয়েকটি নতুন গোলাপ ফুলের ছবি। আশা করছি প্রিয় পাঠকদের ভালো লাগবে।

গোলাপ ফুলের নতুন ছবি
গোলাপ ফুলের নতুন ছবি ২
গোলাপ ফুলের নতুন ছবি ৩
গোলাপ ফুলের নতুন ছবি
গোলাপ ফুলের নতুন ছবি ৫
গোলাপ ফুলের নতুন ছবি ৬
গোলাপ ফুলের নতুন ছবি
গোলাপ ফুলের নতুন ছবি ৯
গোলাপ ফুলের নতুন ছবি ৮
গোলাপ ফুলের নতুন ছবি ৭

শাপলা ফুলের ছবি ও পরিচিতি

শাপলা ফুল চেনেনা এমন কেউ বাংলাদেশে আছে বলে মনে হয়না। শাপলা আমাদের জাতীয় ফুল।ইংরেজি নাম Water lily।বাংলাদেশের খাল, বিল, হাওড়,নদী সর্বত্রই শাপলা ফুল চোখে পড়ে। এর সৌন্দর্য দেখে আমরা সবাই মুগ্ধ। সারা বিশ্বে শাপলা ফুলের প্রায় আশিটি জাত রয়েছে। এর মধ্যে সাদা শাপলা আমাদের জাতীয় ফুল হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে। এছাড়াও লাল শাপলা ফুলও বাংলাদেশের সর্বত্র কম বেশি চোখে পড়ে। শাপলা ফুলের সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হলো এটি পানিতে জন্মে।জাতীয় ফুল হিসেবে বিশেষ মর্যাদার অধিকারী হওয়ায় শাপলা ফুল দিয়েই শুরু করা হলো আমাদের ফুলের পরিচিতি।

শাপলা ফুলের ছবি

ফুলের ছবি গোলাপ: গোলাপ ফুলের ছবি ও পরিচিতি

বাংলায় গোলাপ ইংরেজিতে Rose।পৃথিবীর সবচেয়ে সুপরিচিত এবং জনপ্রিয় ফুল সম্ভবত এই গোলাপ ফুল। ফুলের রাণী হিসেবে সবাই চেনে এই গোলাপকে। সৌন্দর্য এবং ভালবাসার প্রতীক হিসেবে সবাই স্বীকৃতি দিয়েছে গোলাপ ফুলকে। নানা বর্ণের প্রায় ১০০ প্রজাতির গোলাপ রয়েছে পৃথিবীজুড়ে। তবে লাল গোলাপ সবচেয়ে সহজলভ্য।

ফুলের ছবি গোলাপ
beautiful rose
গোলাপ ফুলের ছবি

পদ্ম ফুলের ছবি ও পরিচিতি

Lotus বা পদ্ম হলো শাপলার মতোই আরেকটি জলজ প্রজাতির ফুল। অনেকেই একে জলজ ফুলের রাণী বলে।এটি ভারতের জাতীয় ফুল।এছাড়া হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কাছে পদ্ম একটি পবিত্র ফুল।পদ্ম ফুলের রং লাল, সাদা এবং গোলাপীর মিশ্রণ।বর্ষাকালে পদ্ম ফুল ফোটা শুরু হয় এবং শরৎকালে বেশি পরিমাণে দেখা যায়।বাংলাদেশের সর্বত্রই যেখানে সারাবছর পানি থাকে এরকম জলাশয়ে পদ্ম ফুল ফুটতে দেখা যায়।

পদ্ম ফুল

কদম ফুলের ছবি ও পরিচিতি

বাদল দিনের প্রথম কদম ফুল করেছ দান,
আমি দিতে এসেছি শ্রাবণের গান।।

কদম ফুলের মাহাত্ম্য রবীন্দ্রনাথের মতো আর কেউ মনে হয় উপলব্ধি করতে পারেনি।বনে বাদাড়ে অবহেলায় জন্ম নেয়া এই ফুলকে নিজের গানের মাঝে নিয়ে এসে প্রকৃতি ও ফুল প্রেমীদের যেন চোখ খুলে দিয়েছেন তিনি।আষাঢ়, শ্রাবণ মাস অর্থাৎ বর্ষাকাল কদম ফুল ফোটার আদর্শ সময়। কদম ফুল আমরা সবাই চিনি।ছোট বেলায় সবাই খেলেছি এই ফুল দিয়ে।বাংলাদেশের সব অঞ্চলেই দেখা মেলে কদম ফুলের।

কদম ফুল

সূর্যমুখী ফুলের ছবি ও পরিচিতি

সূর্যমুখী(Sunflower) বাংলাদেশে খুবই পরিচিত একটি ফুল।সূর্যের দিকে মুখ করে থাকে বলেই এর এমন নাম।পূর্নবয়স্ক সূর্যমুখী ফুল আকারে অনেক বড় এবং দেখতে খুবই সুন্দর।শুধু ফুল হিসেবেই এটি পরিচিত নয়। সূর্যমুখী ফুলের উপকারিতা অনেক।সূর্যমুখী ফুলের বীজ ভোজ্যতেল হিসেবেও ব্যবহৃত হচ্ছে।ভোজ্যতেল হিসেবে চাহিদা থাকায় সূর্যমুখী ফুল চাষ লাভজনক।শোনা যায় ১৯৭৫ সাল থেকেই বাংলাদেশে সূর্যমুখী ফুল চাষ করা হচ্ছে।এর মধ্যে নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এটি ব্যাপকভাবে চাষ করা হচ্ছে।কোলেস্টেরলের মাত্রা কম থাকায় সূর্যমুখী তৈল স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

সূর্যমুখী ফুল

জবা ফুলের ছবি ও পরিচিতি

জবা ফুলের নাম শোনেননি বা দেখেননি,জবা ফুল চেনেন না এমন লোক কি বাংলাদেশে খুৃঁজে পাওয়া সম্ভব?জবা ফুলের বৈশিষ্ট্য খুবই সাধারণ।ফুলের রং সাধারণত লাল এবং গন্ধহীন।জবা ফুল দেখতে সুন্দর।বাংলাদেশের আনাচে কানাচে এমন কোনো অঞ্চল নেই যেখানে জবা ফুল ফোটেনা।সারা বছরই জবা ফুল ফুটতে দেখা যায় তবে গ্রীষ্মকাল এবং শরৎকালে এ ফুল বেশি দেখা যায়।বলা যায় যার একটি শখের ফুলের বাগান আছে তার বাগানে অবশ্যই অন্তত একটি জবা ফুলের গাছ আছে।

জবা ফুল

গাঁদা ফুলের ছবি ও পরিচিতি

গাঁদা ফুল খুবই সুপরিচিত একটি ফুল।যে কোনো বাগানপ্রেমিদের বাগানের কমন ফুল হলো গাঁদা।এটি শীতকালীন ফুল হলেও গ্রীষ্ম এবং বর্ষাতেও ফোটে।নব্বুই এর দশক থেকে এটি বাংলাদেশে চাষ করা হয়।ঘরবাড়ি সাজানো, উৎসব, পূজা পার্বণে গাঁদা ফুল ব্যাপকভা‌বে ব্যবহৃত হয়।

গাঁদা ফুল

রজনীগন্ধা ফুলের ছবি ও পরিচিতি

রজনীগন্ধা ফুল ভালোবাসেননা এমন লোক মনে হয় খুঁজে পাওয়া যাবেনা।সাদা রঙের মনোমুগ্ধকর এ ফুল সর্বত্রই জনপ্রিয়।এর রয়েছে প্রাণমাতানো সুবাস।বিভিন্ন উৎসব,অনুষ্ঠানে রজনীগন্ধা ফুলের রয়েছে ব্যাপক কদর।প্রিয়জনকে একটি সুন্দর ফুলের তোড়া উপহার দিতে চান?রজনীগন্ধা ফুল ছাড়া সেই ফুলের তোড়া অসম্পূর্ণই মনে হবে।সারা দেশে এবং সারা বছরই এর চাহিদা থাকায় বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বাণিজ্যিকভাবে চাষ হচ্ছে রজনীগন্ধা ফুল।পাঠকদের জন্য দেয়া হলো সুন্দর একটি রজনীগন্ধা ফুলের ছবি।

রজনীগন্ধা ফুল

গন্ধরাজ ফুলের ছবি ও পরিচিতি

বাংলাদেশ ও ভারতে গন্ধরাজ বেশ পরিচিত এবং জনপ্রিয় একটি ফুল। ফুল প্রেমীদের কাছে গন্ধরাজের বেশ কদর রয়েছে। তীব্র মন মাতানো সুগন্ধের জন্যই এ ফুলের এমন নাম। এ ফুল গ্রীষ্মকালে ফোটে এবং পুরো গ্রীষ্মকাল জুড়েই এ ফুলের ব্যাপ্তি। এটি চিরসবুজ এবং গুল্মজাতীয় উদ্ভিদ। ফুলের আকার আকৃতি অনেকটা গোলাপের মতো হলেও ফুলের রং ধবধবে সাদা।

গন্ধরাজ ফুল

বেলি ফুলের ছবি ও পরিচিতি

বেলির ইংরেজি: Arabian jasmine এবং  বৈজ্ঞানিক নাম: Jasminum sambac   এটি একটি সুগন্ধী সাদা ফুল। এর পাতা একক ও গাঢ় সবুজ রংয়ের হয়।এই ফুল গাছের উচ্চতা এক মিটারের মতো হয়।  সাধারণত  গ্রীষ্ম ও বর্ষায় এই ফুল ফোটে। ফুলের আকার ও গড়ন অনুসারে তিনটি জাত পাওয়া যায়।আমাদের দেশে অলংকার  হিসেবে বেলি ফুলের ব্যাপক ব্যবহার হয় এছাড়াও ফুলের তোড়া ও মালা তৈরিতে এর ব্যবহার অধিক।

জুঁই ফুলের ছবি ও পরিচিতি

বাংলাদেশ ও পৃথিবীর আরও কয়েকটি দেশে জুঁই খুব জনপ্রিয় ফুল।এর বৈজ্ঞানিক নাম Jasminum ও ইংরেজি নাম Jasmine.জুঁই এর পাতা শীতকালে ঝরে আবার কোনো কোনো গাছ সারা বছর সবুজ থাকে।  জুঁই ফুল সাদা ও হলুদ হয়।এই গাছের  পাতা  উল্টোদিকে গজায়। সাধারণত জুঁই ফুলের জন্য এ গাছের চাষ হয়।এই ফুলের অপরুপ সৌন্দর্য ও মিষ্টি সুগন্ধের জন্যই এর চাষ হয়। বিয়ে এবং হিন্দু ধর্মের বিভিন্ন আচার অনুষ্ঠানে  জুঁই ফুল ব্যবহার করা হয়।

ডালিয়া ফুলের ছবি ও পরিচিতি

ডালিয়া তার অপরুপ সৌন্দর্য দিয়ে সবার প্রিয় হয়ে উঠেছে। এই ফুলের বৈজ্ঞানিক নাম DahliaVariailis । মধ্য আমেরিকা এবং মেক্সিকোতে জন্মানো অসাধারণ সুন্দর ফুল ডালিয়া। ডালিয়া হলো শীতকালীন মৌসুমি ফুল। এই ফুল অন্যান্য ফুলের তুলনায় অনেক বড়,অসম্বব সুন্দর এবং আকর্ষণীয় রঙের হয়। ডালিয়া মেক্সিকোর জাতীয় ফুল। এই ফুলের ৪২ টি প্রজাতি এবং ১১টি জাত আছে। ডালিয়া ফুলের আকার পরিবর্তন হয়। অ্যানেমিন ফাওয়ার্ড, কলারেট, পিওনি ফাওয়ার্ড, ইন ফরমাল ডেকোরেটিভ, ডবল শো ফ্যান্সি, পম্পন, রয়্যাল হোয়াইন, ইত্যাদি ডালিয়া ফুলের কয়েকটি জাত।

ডালিয়া ফুলের ছবি

জিনিয়া ফুলের ছবি ও পরিচিতি

জিনিয়া একটি অসাধারণ সুন্দর ফুল। এর বৈজ্ঞানিক নাম zinnia elegans এবং এর ইংরেজি নাম হলো zinnia। এটি একটি বিরুৎ প্রজাতির উদ্ভিদ। এই ফুল সাদা লাল হলুদ বেগুনি কমলা ইত্যাদি বিভিন্ন রঙের হয়। তাই এই ফুল বাহারী রঙের ফুল নামে পরিচিত।

জিনিয়া ফুলের ছবি

নয়নতারা ফুলের ছবি ও পরিচিতি

নয়নতারা বাংলাদেশের খুবই জনপ্রিয় একটি ফুল।বাংলায় এটিকে নয়নতারা বলে।ইংরেজীতে peri Winkle এবং এই ফুলের বৈজ্ঞনিক নাম vinca roses. এই গাছ তাড়াতাড়ি চারপাশে চড়িয়ে যায়।এর কান্ড ও পাতা গাঢ় সবুজ এবং কান্ডগুলো নরম ও রসালো হয়। নয়নতারা ফুল গন্ধহীন কিন্তূ খুবই আকর্ষণীয়। নয়নতারা ফুল বিভিন্ন রঙের হয়ে তাকে। এই ফুলের কালো রঙের বীজ হয়।এই ফুল গাছের বিভিন্ন অংশ নানা রোগের উপশম ঘটে।

নয়নতারা ফুল

রঙ্গন ফুলের ছবি ও পরিচিতি

রঙ্গন অসাধারণ সুন্দর একটি ফুল। এর ইংরেজী নাম lxora এবং বৈজ্ঞনিক নাম Ixora coccinea। রঙ্গন ফুলের গাছ ঘনসবুজ হয় এবং এটি একটি    গুল্ম জাতীয় উদ্ভিদ। বীজ থেকে এবং গাছের ডাল কেটে লাগিয়ে এই ফুল গাছের বংশবিস্তার করা যায়। রঙ্গন ফুল লাল হলুদ গোলাপী ইত্যাদি বিভিন্ন রঙের হয়।

রঙ্গন ফুল

টগর ফুলের ছবি ও পরিচিতি

টগর বাংলাদেশের খুব পরিচিত একটি ফুল। যদিও বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে এর নাম ভিন্ন।সাধারণত ঝোপঝাড়ের মতো এই ফুলের গাছ।এর বৈজ্ঞানিক নাম Tabernaemontana divaricata.এই ফুল এশিয়া আফ্রিকাসহ নানা অঞ্চলে দেখা যায়। বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে এর প্রচলিত নাম দুধফুুল,কাঠ মালতী,কাঠমল্লিকা ইত্যাদি। টগর সাধারণত দুই ধরনের হয়।একক টগর এবং থোকা টগর।এই গাছ বন বাদাড়ে এমনিতেই জন্মে।বিশ্বে এর ৪০টি প্রজাতি আছে।বাংলাদেশে ৪টি পাওয়া যায়। 

টগর ফুলের ছবি ও পরিচিতি

টিউলিপ ফুলের ছবি ও পরিচিতি

টিউলিপ একটি অতীব সুন্দর ও আকর্ষণীয় ফুল।এর বৈজ্ঞানিক নাম Tulipa.
এই ফুল অনেকে পাত্রে বা টবে লাগিয়ে থাকে। এছাড়াও বানিজ্যিকভাবে এটি জমিতে ও চাষ করা হয়। টিউলিপ সাধারনত বসন্তকালীন ফুল হিসাবে পরিচিত। এই ফুলের ১৫০টির মতো প্রজাতি আছে। টিউলিপ ফুল বিভিন্ন রঙের হয়ে থাকে এই ফুলগুলো অনেকটা কাপ ও তারার মতো হয়ে থাকে। বেশিরভাগ সময় একটি ডাটা থেকে একটি মাত্র ফুল হয় দু একটা প্রজাতি ছাড়া। টিউলিপ গাছে সাধারণত দুই থেকে ছয়টি পাতা থাকে তবে প্রজাতিবেদে এর পাতা একটু কম বেশি হয়। একটি গাছে ১২টির বেশি পাতা হয় না।

টিউলিপ ফুলের ছবি ও পরিচিতি

অপরাজিতা ফুলের ছবি ও পরিচিতি

অপরাজিতা খুবই সুন্দর ও আকর্ষণীয় ফুল। এর বৈজ্ঞানিক নাম হলো clitoria ternatea.এটি ফুল সাধারণত ফ্যাবেসি প্রজাতির একটি ফুল। অপরাজিতা ফুল গাঢ় নীল রঙের হয়। তবে কিছু কিছু  জায়গায় সাদা অপরাজিতা ও দেখা যায়।

অপরাজিতা ফুলের ছবি
অপরাজিতা ফুলের ছবি ও পরিচিতি

হাসনাহেনা ফুলের ছবি ও পরিচিতি

হাসনাহেনা এমন একটি ফুল যার ঘ্রাণ আপনাকে মুগ্ধ করে দেবে। তবে হাসনাহেনা দেখতে খুব সাদামাটা একটি ফুল। লতানো এক ধরনের ঝোপাল গাছ এটি। ডালের গায়ে সাদা সাদা তিলের মতো থাকে, এগুলোকে ল্যান্টিসেল। হাসনাহেনা ওয়েস্ট ইন্ডিজের একটি প্রজাতি। পাতা লম্বা হয়। নলের মতো পাঁচ পাপড়ি বিশিষ্ট সাদা ফুল হয় এবং এই ফুল সন্ধ্যা বেলা ফোটে। হাসনাহেনা ফুলে এতোই সুগন্ধ যেখানেই থাকে গন্ধ দিয়ে জানান দেয়।
হাসনাহেনার বৈজ্ঞানিক নাম Cestrum nocturnum।এই ফুলের অনেকগুলো ইংরেজী নাম রয়েছে সেগুলো হলো

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *