মহিলাদের ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ম | মেয়েদের নামাজের নিয়ম

মহিলাদের ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ম | মেয়েদের নামাজের নিয়ম

মহিলাদের ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ম | মেয়েদের নামাজের নিয়ম

আপনি কি জানতে চান মহিলাদের ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ম? প্রতি বছরই মুসলমানদের জন্য আল্লাহ তায়ালা দুইটি দিনকে ঈদ হিসেবে নির্ধারণ করেছেন।

আমাদের মাঝে বছর ঘুরে রোজার পরে উপস্থিত হয় মহিলাদের ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ম ।

আরেকটি দিন হল ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ। এই ঈদ প্রতিবছর জিলহজ্ব মাসের ১০ তারিখে হয়ে থাকে।

এই দুনো দিনে ঈদের নামাজ আদায় করা মুসলমানদের জন্য ওয়াজিব। দুই ঈদের মাঝে সময়ের ব্যবধান থাকে।

ফলে মানুষ ঈদের নামাজের নিয়ম ভুলে যায়। তাই আজ আমি  মহিলাদের ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ম কানুন সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

মহিলাদের ঈদের নামাজের নিয়ম

মহিলাদের ঈদের নামাজ  পুরুষদের মত। তবে এখানে কয়েকটি বিষয় জানতে হবে ।

প্রথম বিষয় : ঈদের নামাজ জামাতের সাথে আদায় করতে হবে। একাকী আদায় করলে হবে না। এ হিসেবে কোন মহিলা বাড়িতে একাকী ঈদের নামায আদায় করতে চাইলে তার নামায আদায় হবে না।

দ্বিতীয় বিষয় : ঈদের নামাজে নারীদেরকে নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম অংশগ্রহণ করা সম্পর্কে অনুমতি দেননি বরং তা আদায়ের নির্দেশ দিয়েছেন। তবে তা ওয়াজিব হিসেবে নয় বরং তাগিদ হিসেবে দেওয়া হয়েছে।

আমাদের দেশের ঈদগাহ গুলোতে নারীদের অংশগ্রহণের জন্য আলাদা কোনো ব্যবস্থা করা হয়না। এক্ষেত্রে বেপর্দা ও ফেতনার আশংকা বেশি।

এই কারণে নারীদের ঈদগাহে অংশগ্রহণ করার ক্ষেত্রে কোনো সুযোগ নেই। যদি অংশগ্রহণ করতেই হয় তাহলে পর্দার ব্যবস্থা করতে হবে।

মহিলাদের ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ম

যদি কোন মহিলা ঈদগাহের জামাতে অংশগ্রহণ করতে চায় তাহলে পূর্ণ পর্দার সাথে ফেতনামুক্ত হয়ে ঈদের নামাজে অংশগ্রহণ করতে পারবে।

আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে সঠিক বিষয় বুঝে ঠিক মতো ঈদের নামাজ পড়ার তৌফিক দান করুন। আমিন।

পরিশেষে বলব : উপরে উল্লেখিত ঈদের নামাজ পড়ার নিয়ম ও মহিলাদের ঈদের নামাজ পড়ার নিয়ম সম্পর্কে যা আলোচনা করা হলো যদি এ গুলো ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন এবং শেয়ার করতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ।

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *