আয় করুন অ্যাপের মাধ্যমে এবং সরকারি চাকুরির পরীক্ষার প্রস্তুতি নিন

আয় করুন অ্যাপের মাধ্যমে এবং সরকারি চাকুরির পরীক্ষার প্রস্তুতি নিন

আমার আজকের পোস্টটি হলো সরকারি চাকুরি প্রার্থী ভাই বোনদের জন্য। আমাদের দেশে প্রতিনিয়ত লাখ লাখ চাকুরি প্রার্থী তৈরি হচ্ছে। অর্থাৎ দিন দিন একজন চাকুরি প্রার্থীর প্রতিদ্বন্দ্বী হুরহুর করে বাড়ছে। তাই এই চাকুরির বাজারে নিজেকে যোগ্য করে তুলতে অনেক প্রস্তুতি নিতে হয়। আর এর জন্য আমরা অনেক ধরনের জবের প্রস্তুতিমূলক বই ক্রয় করে পড়ে থাকি। এতে করে আমাদের অনেক ব্যয় বেড়ে যায়। যা আমাদের অনেকের পক্ষেই বহন করা প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়ে। কিন্তু আপনি চাইলে এখন থেকে আর খরচ না করে উল্টো আয় করে এবং বই না পড়ে ডিজিটাল পদ্ধতিতে আপনার হাতে থাকা মোবাইলের মাধ্যমে যেকোন সরকারি চাকুরির প্রস্তুতি নিতে পারেন।

যেখানে পূর্বের বিষয়াবলী সহ নিত্য নতুন বিষয়ও হালনাগাদ হবে। তাই বলতে গেলে আপনি সবসময় পরীক্ষার প্রস্তুতিতে আপডেট থাকতে পারবেন। তো চলুন অ্যাপটির ফিচার সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।অ্যাপটি ব্যবহার করতে হলে প্রথমে আপনাকে এখান থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে। তারপর অ্যাপটি আপনার মোবাইলে ইনস্টল করে ওপেন করুন।

অ্যাপটি যখন ওপেন করবেন তখন ঠিক উপরের স্ক্রিনশটের মত Home পেজ আসবে। Home পেজের পাশাপাশি আপনি নিচের ডাউনবারে থাকা Exam, Fav-Q, Profile এবং Menu দেখতে পাবেন। অ্যাপটিতে প্রায় ২,০০,০০০ (দুই লক্ষ) এর উপরে প্রশ্ন রয়েছে। এখানে বিভিন্ন ক্যাটাগরি ভিত্তিক প্রশ্নগুলো সাজানো হয়েছে। তাই আপনি চাইলে বিষয়ভিত্তিক, অধ্যায় ভিত্তিক, জব ক্যাটাগরি ভিত্তিক পড়তে পারেন।

অ্যাপটি যখন ওপেন করবেন তখন ঠিক উপরের স্ক্রিনশটের মত Home পেজ আসবে। Home পেজের পাশাপাশি আপনি নিচের ডাউনবারে থাকা Exam, Fav-Q, Profile এবং Menu দেখতে পাবেন। অ্যাপটিতে প্রায় ২,০০,০০০ (দুই লক্ষ) এর উপরে প্রশ্ন রয়েছে। এখানে বিভিন্ন ক্যাটাগরি ভিত্তিক প্রশ্নগুলো সাজানো হয়েছে। তাই আপনি চাইলে বিষয়ভিত্তিক, অধ্যায় ভিত্তিক, জব ক্যাটাগরি ভিত্তিক পড়তে পারেন।

এছাড়াও অ্যাপটিতে সাম্প্রতিক প্রশ্নোত্তর অর্থাৎ ইতিমধ্যে বিভিন্ন চাকুরির যে পরীক্ষাগুলি সম্পন্ন হয়েছে, সাম্প্রতিক বিষয়াবলী অর্থাৎ সাম্প্রতিক সময়ে যা কিছু ঘটেছে, জব ই-বুক ও লেকচার নোট পাবেন।

অ্যাপটিতে প্রশ্নোত্তর পড়তে Home পেজে বিষয় ভিত্তিক, অধ্যায় ভিত্তিক অথবা পরীক্ষার ক্যাটাগরি ভিত্তিক আপনার যেভাবে ইচ্ছে একটি সিলেক্ট করুন। যেমন আমি কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি নিলাম। নেওয়ার পর ঠিক উপরের স্ক্রিনশটের মত আসবে। এখানে খেয়াল করুন উপরে তিনটি অপশন রয়েছে। প্রাক্টিস, পড়ুন ও পরীক্ষা। প্রথমে প্রাক্টিস অপশন এখানে আপনি প্রশ্রগুলোর উত্তর অনুমান করে যাচাই করে নিতে পারবেন। নিচে থেকে আপনি দেখতে পারবেন আপনার কয়টি সঠিক হয়েছে কয়টি ভুল হয়েছে। বলে রাখা ভালো প্রত্যেকটি পেজে আপনি Day নামক একটি অপশন দেখতে পাবেন। সেটিতে ক্লিক করলে আপনি যদি নাইট মুডে দেখতে চান তাহলে সেটি করতে পারবেন।

তারপর পড়ুন অপশনে ক্লিক করলে ঠিক উপরের স্ক্রিনশটের মত আসবে। এখানে আপনি প্রত্যেকটি প্রশ্নের সঠিক উত্তর সিলেক্টকৃত অবস্থায় পাবেন। তো এখান থেকে সঠিক উত্তর দেখে দেখে পড়ে নিবেন। এছাড়াও এখানে নিচে দুইটি অপশন দেখতে পারবেন। একটি হলো আপনার যদি এই পাতাটি পড়া শেষ হয়ে যায় তাহলে পড়া হয়েছে বাটনটিতে ক্লিক করুন। দ্বিতীয়টি হলো স্ক্রল অপশন যা চালু করে দিলে উক্ত পাতাটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিচে থেকে উপরের দিকে উঠবে একটি ভিডিও ফাইলের মত। আপনি চাইলে এর গতি কমাতে ও বাড়াতে পারবেন।

তারপর পরীক্ষা অপশন এখানে আপনি যা পড়লেন তা পরীক্ষা দিতে পারবেন। প্রশ্নের সংখ্যানুযায়ী সময় স্বয়ংক্রিয়ভাবে নির্ধারণ হয়ে যাবে। পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়ার পর Submit বাটনে ক্লিক করে জমা দিয়ে দিন।

সাবমিট দেওয়ার পর উপরের স্ক্রিনশটের মত ফলাফল এর পাতা আসবে। এখানে বিস্তারিত ফলাফলের তালিকা থাকবে। এই পাতার নিচে গিয়ে “উত্তরপত্রটি দেখুন” বাটনে ক্লিক করলে উত্তরপত্রটি চলে আসবে। এইবার এখান থেকে আপনার কোনটি সঠিক হয়েছে এবং কোনটি ভুল হয়েছে তা দেখে নিতে পারবেন।

তারপর হোম পেজের সাম্প্রতিক প্রশ্নোত্তর ও সাম্প্রতিক বিষয়াবলী অপশনের মাধ্যমে আপনি সম্প্রতি সম্পন্ন হওয়ার পরীক্ষার প্রশ্ন এবং সম্প্রতি ঘটে যাওয়া বিভিন্ন ঘটনার তথ্য দেখতে পারবেন ঠিক উপরের স্ক্রিনশটের মত।
হোম পেজে থাকা জব ই-বুক এবং লেকচার নোটও সংগ্রহ করতে পারবেন। এইজন্য আপনাকে যেটি সংগ্রহ করতে চান সেটিতে ক্লিক করে উপরের স্ক্রিনশটের মত ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করতে হবে।
হোম পেজের ডানপাশে নিচে দেখুন একটি সবুজ রংয়ের ডাউনলোড বাটন রয়েছে। এটির মাধ্যমে সর্বশেষ আপডেট হওয়া প্রশ্ন আপনার অ্যাপে যুক্ত করে নিতে পারবেন।
ডাউনবারে থাকা Exam পাতার মাধ্যমে আপনি বিষয় ভিত্তিক, অধ্যায় ভিত্তিক এবং নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন অনুসারে পরীক্ষা দিতে পারবেন। আপনি চাইলে এখান থেকে কাস্টম মডেল টেস্ট তৈরি করে পরীক্ষা দিতে পারবেন।
ডাউনবারে থাকা Fav Q পাতাটিতে আপনি আপনার পছন্দের তালিকা দেখতে পাবেন ঠিক উপরের স্ক্রিনশটের মত।
ডাউনবারে থাকা Profile পাতাতে আপনি আপনার প্রোফাইলের ডাটা দেখতে পাবেন এবং সম্পাদনা করতে পারবেন।
ডাউনবারে থাকা সর্বশেষ অপশন Menu এখান থেকে আপনি অ্যাপের সম্পর্কে এবং ভার্সনসহ আরো অনেক কিছু জানতে পারবেন। এছাড়াও আপনি এখান থেকে চাইলে অ্যাপের মধ্যে করা আপনার কার্যক্রম মুছে দিতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে About my data তে ক্লিক করে Request delete data অপশনে ক্লিক করতে হবে। তারপর এটি আপনাকে আপনার মেইল অপশনে নিয়ে যাবেন। সেখানে আপনার ইউজার নেম দিয়ে রিকুয়েস্ট করলে আপনার ডাটা তারা মুছে ফেলবে।
এতোক্ষণতো অ্যাপ থেকে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়ার বিষয় বুঝলাম। এইবার আসি কিভাবে অ্যাপ থেকে বিনা চালানে আয় করা যায় তা নিয়ে। সর্বপ্রথম আপনি অন্যকে রেফার করার মাধ্যমে আয় করতে পারেন। এর জন্য যখন আপনি একদম সর্বপ্রথম অ্যাপটি ওপেন করবেন এবং প্রোফাইলে অপশনে যাবেন রেজিস্ট্রেশন করার জন্য তখন একদম নিচে দেখতে পারবেন একটা বক্স রয়েছে রেফার কোড এর। এখানে আপনি যে কারো একটি রেফার কোড বসালে আপনি পাবেন ২০ পয়েন্ট এবং যার কোড ব্যবহার করবেন তিনি পাবেন ২০ পয়েন্ট। আমার রেফার কোড – BH29GL হলো এটি। আপনার যদি ইচ্ছে হয় তাহলে এটির ব্যবহার করতে পারেন। আর না হলে করার দরকার নেই। এইভাবে আপনার অ্যাকাউন্টে ৫০০ পয়েন্ট জমা করতে পারলে আপনি এর বিপরীতে ১০০ টাকা উত্তোলন করতে পারবেন বিকাশের মাধ্যমে। আপনি আপনার রেফারেল কোড পেতে চাইলে আপনার প্রোফাইলে ক্লিক করে নিচের দিকে গেলে “রেফার করে আয় করুন, যত খুশি তত!” লেখাটিতে ক্লিক করে আপনি আপনার রেফার কোডটি পেয়ে যাবেন। আর অন্যের সাথে শেয়ার করে আয় করতে থাকুন।

এছাড়াও আরেকটি পদ্ধতিতেও আপনি পয়েন্ট অর্জন করতে পারবেন। সেটি হলো নতুন প্রশ্ন যুক্ত করে ৩ পয়েন্ট, প্রশ্নের ব্যাখ্যা যুক্ত করে ৩ পয়েন্ট, ভুল সংশোধন করে ৩ পয়েন্ট ও অধ্যায় যুক্ত করে ১ পয়েন্ট পাবেন। এইভাবেও পয়েন্ট অর্জন করতে পারবেন। এইভাবে অ্যাপটিতে চাকুরির প্রস্তুতির পাশাপাশি আস্তে আস্তে একটু একটু করে ৫০০ পয়েন্ট জমিয়ে নগদ ১০০ টাকার মালিক হয়ে যান। আশা করি অ্যাপটি আপনাদের উপকারে আসবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *