আজকের ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং এর অবস্থান | ঘূর্ণিঝড় এর অবস্থান

আজকের ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং এর অবস্থান | ঘূর্ণিঝড় এর অবস্থান

গতকাল রাত ৯টায় মোংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ৭০৫ কিলোমিটার দক্ষিণ, দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থান করছিল। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৫ কিলোমিটারের ভেতরে বাতাসের একটানা গড় গতিবেগ ঘণ্টায় ৬৫ কিলোমিটার, যা দমকা হাওয়া আকারে ৭৫ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল। সাগর ফুঁসছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর দেশের সকল সমুদ্র বন্দরকে ৪ নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে। 

বাংলাদেশেই আসছে ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং!

ঝড়টির আকার ৭৩০ কিলোমিটারজুড়ে * বরিশাল দিয়ে স্থলভাগে উঠতে পারে ঘূর্ণিঝড়ের চোখ * ১১০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাতাসের গতিবেগ থাকার আশঙ্কা * সাগরে ৪ নম্বর স্থানীয় ও নদীবন্দরে ২ নম্বর সতর্ক সংকেত

ঘূর্ণিঝড়টি ১৯ জেলার ৭৩০ কিলোমিটার উপকূল জুড়ে আঘাত হানতে পারে

এদিকে ঘূর্ণিঝড়ের সম্ভাব্য আঘাতের কথা চিন্তা করে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় গতকাল সভা করেছে। ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা.এনামুর রহমান সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে জানান, সিত্রাং ঘূর্ণিঝড়টি কক্সবাজার থেকে সাতক্ষীরা পর্যন্ত ১৯ জেলার ৭৩০ কিলোমিটার উপকূল জুড়ে আঘাত হানতে পারে। এটির গতিবেগ হতে পারে ৯০ থেকে ১১০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা। সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী, ফেনী, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার এবং এ জেলাগুলোর অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলোর নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে তিন থেকে পাঁচ ফুট উচ্চতার বায়ুতাড়িত জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে। এনামুর রহমান বলেন, গত তিন বছরে যে ঘূর্ণিঝড় হয়েছে তার মধ্যে এর কভারেজ এলাকা সবচেয়ে বেশি। দেশের উপকূলীয় সব জেলায় জরুরি খাবার, উদ্ধার সরঞ্জামসহ ঘূর্ণিঝড়-পরবর্তী অবস্থা মোকাবিলায় স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় সার্বিক প্রস্তুতি নিয়েছে সরকার। 

এর ফলে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। আগামীকাল মঙ্গলবার ভোরে দেশের বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের মধ্যবর্তী এলাকা দিয়ে উপকূল অতিক্রম করতে পারে। তিনি বলেন, ভারী বর্ষণের ফলে দেশের বিভিন্ন জায়গায় আকস্মিক বন্যা পরিস্থিতি হতে পারে। বিশেষ করে দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের কিছু স্থানে আকস্মিক বন্যা এবং পূর্বাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চলের মহুরী, মনু, খোয়াই, সুরমা-কুশিয়ারা নদ-নদীর পানি সমতলে দ্রুত বৃদ্ধি পেতে পারে। সময় বিশেষে আকস্মিক বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. মনোয়ার হোসেন বলেন, গভীর নিম্নচাপটির বর্ধিতাংশ, অমাবস্যা তিথি ও বায়ুচাপ পার্থক্যে আধিক্যের প্রভাবে উপকূলীয় জেলায় বায়ুতাড়িত জলোচ্ছ্বাস হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

আজকের ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং এর অবস্থান

নিচের সাইট দেখুন

https://www.windy.com/?23.727,90.409,5

Posts created 2227

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Posts

Begin typing your search term above and press enter to search. Press ESC to cancel.

Back To Top