সিম নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করা

সিম নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করা

প্রত্যেকটি নাগরিকের জন্য ভোটার আইডি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। একজন নাগরিকের ভোটার আইডি না থাকলে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। আজকাল প্রায় সব কাজেই ভোটার আইডি বাধ্যতামূলক হয়ে গেছে।

একজন নাগরিক কোন দেশের নাগরিক তা বোঝা যায় ভোটার আইডির মাধ্যমে।অফিশিয়াল যেকোনো ধরনের গুরুত্বপূর্ণ কাজে জাতীয় পরিচয়পত্র বা ভোটার আইডি অত্যাবশ্যকীয়।

সিম নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করা
সিম নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করা

আজকের এই পোস্টে ভোটার আইডি সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্যাবলী নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।তাই আমি মনে করি পোষ্টটি আপনাদের জন্য অত্যন্ত কার্যকরী হবে

মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র

বর্তমানে খুব সহজেই মোবাইল নাম্বার দিয়ে নাগরিক তার জাতীয় পরিচয় পত্রের তথ্য সংগ্রহ করতে পারে। অনেক সময় অনেক কাজে জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বারটি প্রয়োজন হয়।

কিন্তু জাতীয় পরিচয় পত্র কাছে না থাকার কারণে জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার  দেওয়া সম্ভব হয় না।সে ক্ষেত্রে খুব সহজেই মোবাইল নাম্বারের মাধ্যমে কিছু প্রক্রিয়া অবলম্বন করে সহজেই জাতীয় পরিচয় পত্রের তথ্য বের করা যায়।প্রথমে *১৬০০*২#  ডায়াল করলেই রিকোয়েস্ট এক্সেপ্ট হয়ে যাবে।

কিছুক্ষণের মধ্যেই মেসেজের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে জাতীয় পরিচয় পত্রের সঠিক নাম্বারটি। এভাবে খুব সহজেই মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্রের তথ্য বের করা যায়। এই পোস্টের মাধ্যমে আপনারা অনেক কিছু জানতে পারবেন।তাই মনে করি পোষ্টটি আপনাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

আইডি নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করা

বর্তমানে ভোটার আইডি নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড সংক্রান্ত সকল তথ্য পাওয়া যায়।তার জন্য কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে।প্রথমে এই (http://services.nidw.gov.bd) ওয়েবসাইটে গিয়ে প্রবেশ করতে হবে।

অতঃপর আপনার এনআইডি নাম্বার টি ক্লিক করে রেজিস্ট্রার অপশন  এ লগইন করতে হবে। কিছুক্ষণের মধ্যেই সব তথ্য পেয়ে যাবেন।

এছাড়াও নিকটস্থ নির্বাচন কমিশন অফিসে গিয়েও ভোটার আইডি কার্ড সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করতে পারবেন। আইডি নাম্বার দিয়ে খুব সহজেই আইডি কার্ড সংক্রান্ত তথ্য পাওয়া যায়।আশা করি পোস্টটি পড়ে আপনারা উপকৃত হয়েছেন।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে কিভাবে কোন ব্যক্তির নাম ঠিকানা বের করা যায়

অনেক সময় আমাদের ফোনে অজানা নাম্বার থেকে ফোন আসে। যার ফলে অনেক সময় বিভ্রান্তিতে পড়তে হয়। নাম ঠিকানা বের করা জরুরী হয়ে পড়ে। এ সকল সমস্যার সমাধান পাওয়া যাবে মোবাইল নাম্বার দিয়ে।

মোবাইল এর মাধ্যমে  খুব সহজেই কোন ব্যক্তির নাম ঠিকানা বের করা সহজ হয়ে গেছে।অ্যাপসের মাধ্যমে কাজটি করা যায়। ট্রুকলার অ্যাপস নামে অ্যাপস আছে যার মাধ্যমে খুব সহজে মোবাইল নাম্বার দিয়ে ব্যক্তির নাম ঠিকানা বের করা যায়।ট্রুকলার যাত্রা শুরু করে প্রায় এখন থেকে প্রায় ১১  বছর আগে।

এই অ্যাপস এর হেড অফিস হচ্ছে সুইডেনে অবস্থিত। ট্রুকলার এর ফ্রি এবং পেইড দুটি ভার্সনই রয়েছে। এছাড়াও নিকটস্থ পুলিশের কাছে গেলেও মোবাইল নাম্বারের মাধ্যমে কোন ব্যক্তির নাম ঠিকানা বের করা করা যায়।

জাতীয় পরিচয় পত্র তৈরী করুন নিজের

বর্তমানে মোবাইল অথবা কম্পিউটার মাধ্যমেই নিজের ভোটার আইডি নিজেই তৈরি করা যায়। প্রথমে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হয়।অতঃপর তারা একটি ফরম প্রদান করে যা সতর্কতার সাথে ফিলাপ করতে হয়।

এক কপি নিজের কাছে জমা রাখতে হয়। সব তথ্য যদি সঠিক হয় তবে নির্দিষ্ট তারিখে ভোটার আইডি কার্ড দেয়া হয়ে থাকে। এভাবে নিজের তারা জাতীয় পরিচয় পত্র নিজেই খুব সহজে তৈরি করা যায়।এতে করে সময় অপচয় হয় না এবং কেউ হয়রানির শিকার  হয়না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *