Vivo Y22s, Y02s, Y16 লঞ্চ হচ্ছে, দাম ও ফিচার বাংলাদেশ

Vivo Y22s, Y02s, Y16 লঞ্চ হচ্ছে, দাম ও ফিচার বাংলাদেশ

ভিভো শীঘ্রই তাদের Y-সিরিজের অধীনে একাধিক নতুন স্মার্টফোন বাজারে উন্মোচন করবে বলে শোনা যাচ্ছে। সম্প্রতি V2206 মডেল নম্বর সহ Vivo Y22s হ্যান্ডসেটটিকে একটি অংশীদারি ওয়েবসাইটে স্পট করা হয়েছে। এই স্মার্টফোনটি Vivo Y22 সিরিজের অংশ হিসেবে বাজারে আসবে, যা গত বছর আগস্ট মাসে লঞ্চ হওয়া Vivo Y21 লাইনআপের উত্তরসূরি হবে বলে জানা গেছে। অন্যদিকে, আরেক Y-সিরিজের হ্যান্ডসেট, Vivo Y02s মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল কমিউনিকেশন কমিশন (FCC) এবং গিকবেঞ্চ (GeekBench) বেঞ্চমার্কিং সাইটে তালিকাভুক্ত হয়েছে। তালিকা অনুযায়ী, Y02s MediaTek Helio P35 অক্টা-কোর প্রসেসর দ্বারা চালিত হবে, যার সাথে ৩ জিবি র‍্যাম যুক্ত থাকবে। চলুন এই আসন্ন ভিভো হ্যান্ডসেটগুলি সম্পর্কে কি কি নতুন তথ্য সামনে এল, জেনে নেওয়া যাক।

Vivo শীঘ্রই আনছে নতুন Y-সিরিজের হ্যান্ডসেট

টিপস্টার পারস গুগলানি (@passionategeekz) মোবাইলস্টক (MobileStalk)-এর সাথে জুটি বেঁধে শেয়ার করেছেন যে, ভিভো আগামী মাসে বাজারে তাদের ভিভো ওয়াই২২ সিরিজটি লঞ্চ করতে পারে, কেননা সম্প্রতি এই সিরিজের একটি মডেলকে একটি পার্টনার্ড ওয়েবসাইটে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। এই নতুন ভিভো ওয়াই২২এস-কে সাইটে V2206 মডেল নম্বরের সাথে দেখা গেছে। উল্লেখিত ভিভো স্মার্টফোন সিরিজটি গত বছর আগস্ট মাসে বাজারে আত্মপ্রকাশ করা ভিভো ভি২১ সিরিজের উত্তরসূরি হিসেবে আসবে।

এর পাশাপাশি, V2203 মডেল নম্বর সহ একটি নতুন ভিভো স্মার্টফোনকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল কমিউনিকেশন কমিশন (FCC)-এর ডেটাবেসে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। আর এই মডেল নম্বরটি ভিভো ওয়াই০২এস-এর সাথে যুক্ত বলে জানা গেছে। একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, একই মডেল নম্বর যুক্ত একটি ডিভাইসকে সম্প্রতি আইএমইআই (IMEI) ডেটাবেসেও দেখা গেছে।

Vivo Y22s, Y02s, Y16 লঞ্চ হচ্ছে, দাম ও ফিচার বাংলাদেশ

প্রসঙ্গত এফসিসি-এর তালিকা অনুযায়ী, Vivo Y02s-এ জিপিআরএস, ইজিপিআরএস, ডাব্লিউসিডিএমএ, এলটিই এবং ভিওএলটিও নেটওয়ার্ক অপশন থাকবে। এটি ২.৪ গিগাহার্টজ + ৫ গিগাহার্টজের ডুয়েল-ব্যান্ড ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ এবং ডুয়াল-সিম সমর্থন সহ আসতে পারে। আবার স্মার্টফোনটি একই মডেল নম্বর সহ গিকবেঞ্চ বেঞ্চমার্কিং ওয়েবসাইটেও উপস্থিত হয়েছে। Vivo Y02s-এর সাথে V2204 মডেল নম্বর সহ আরেকটি ভিভো ফোনের তালিকাও স্পট করা হয়েছে। এই ডিভাইসটি Vivo Y16 নামে লঞ্চ হবে বলে জানা গেছে। সম্প্রতি এটিকে ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ড (BIS) ডেটাবেসেও দেখা গেছে।

জানিয়ে রাখি, গিকবেঞ্চের তালিকা অনুসারে, Vivo Y02s একটি অক্টা-কোর ARM MT6765V/CB চিপসেট দ্বারা চালিত হতে পারে, যার চারটি কোর ১.৮০ গিগাহার্টজ এবং বাকি চারটি ২.৩০ গিগাহার্টজে রান করে। এই তথ্যগুলি নির্দেশ করে যে, এটি মিডিয়াটেক হেলিও পি৩৫ চিপসেট হবে। Vivo Y02s ৩ জিবি র‍্যাম অফার করবে এবং অ্যান্ড্রয়েড ১২ অপারেটিং সিস্টেমে রান করবে বলেও জানা গেছে। এছাড়া গিকবেঞ্চ ওয়েবসাইট অনুসারে, ভিভো হ্যান্ডসেটটি সিঙ্গেল-কোর টেস্টে ১৬৬ পয়েন্ট এবং মাল্টি-কোর টেস্টে ৯০৫ পয়েন্ট স্কোর করেছে।

ভিভো ওয়াই০২এস এবং ওয়াই ১৬-এর সম্ভাব্য মূল্য (Vivo Y02s and Y16 Expected Price)

Vivo Y02s-এর ৩ জিবি র‍্যাম + ৩২ জিবি ইনবিল্ট স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম হতে পারে ১১৩ ডলার (প্রায় ৯,০০০ টাকা)। অন্যদিকে, ভারতের বাজারে Vivo Y16-এর ৪ জিবি র‍্যাম ভ্যারিয়েন্টের মূল্য ১১,৪৯৯ টাকা রাখা হতে পারে।

ভিভো ওয়াই০২এস-এর সম্ভাব্য স্পেসিফিকেশন (Vivo Y02s Expected Specifications)

Vivo Y02s-এ এইচডি+ রেজোলিউশন এবং ৬০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সহ ৬.৫১ ইঞ্চি ডিসপ্লে থাকবে। আগেই উল্লেখ করা হয়েছে, এটি মিডিয়াটেক হেলিও পি৩৫ প্রসেসর দ্বারা চালিত হতে পারে, যার সাথে পাওয়া যাবে ৩ জিবি র‍্যাম এবং ৩২ জিবি ইন-বিল্ট স্টোরেজ। হ্যান্ডসেটটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ অপারেটিং সিস্টেমে রান করবে বলে জানা গেছে। ফটোগ্রাফির জন্য, এতে একটি ৮ মেগাপিক্সেলের একক রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দেখা যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। আর ফোনের সামনে থাকবে একটি ৫ মেগাপিক্সেলের সেলফি শুটার। পাওয়ার ব্যাকআপের ক্ষেত্রে, Vivo Y02s-এ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হবে, যা ইউএসবি টাইপ-সি পোর্টে ১০ ওয়াট চার্জিং এবং ৫ ওয়াট রিভার্স চার্জিং সাপোর্ট করবে।

ভিভো ওয়াই১৬-এর স্পেসিফিকেশন (Vivo Y16 Specifications)

Vivo Y16-এ ফুল-এইচডি+ রেজোলিউশন সহ ৬.৫১ ইঞ্চির ডিসপ্লে থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে। এই ডিভাইসটিও মিডিয়াটেক হেলিও পি৩৫ দ্বারা চালিত হবে, যার সাথে ৪ জিবি র‍্যাম যুক্ত থাকবে। ফটোগ্রাফির জন্য, এতে ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর এবং একটি ২ মেগাপিক্সেলের সেকেন্ডারি সেন্সর সহ ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ উপস্থিত থাকতে পারে। আর সেলফি ও ভিডিও চ্যাটের জন্য, ফোনের সামনে ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরাও দেখা যেতে পারে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, Vivo Y16 ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি অফার করতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *