অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার নতুন নিয়ম । অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার সময়

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার নতুন নিয়ম । অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার সময়।অনেকেই চান না স্টেশনের কাউন্টারে ভিড় ঠেলে ট্রেনের টিকিট কাটতে। কিংবা নানা ব্যস্ততায় সময়ও হয়ে ওঠে না। আর তাই অনলাইনে টিকিট কাটা দিন দিন জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

বাংলাদেশে অনেক আগে থেকেই অনলাইনে ট্রেনের টিকিট বিক্রি চালু রয়েছে। যাত্রীরা বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইট থেকে সহজেই টিকিট সংগ্রহ করতে পারেন। আগামী ২৬ মার্চ থেকে টিকিট পেতে নতুন নিয়ম অনুসরণ করতে হবে।

ই-টিকিটিং সিস্টেমে টিকেট কেনার নতুন পদ্ধতি সম্পর্কে জানিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। সেক্ষেত্রে রেলওয়ের ওয়েবসাইটে একবার রেজিস্ট্রেশন করলেই চলবে।

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার নতুন নিয়ম

রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া

  • প্রথমে বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইটে (www.eticket.railway.gov.bd) প্রবেশ করতে হবে।
  • প্রবেশের পর ওয়েবসাইটের উপরের দিকে রেজিস্ট্রেশন ( Registration) ট্যাব ক্লিক করতে হবে। এতে রেজিস্ট্রেশন নামে নতুন একটি পেজ আসবে। এ পেজে ব্যক্তিগত তথ্যাদি (Personal Information) সংশ্লিষ্ট ঘরগুলো পূরণ করতে হবে। মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি (OTP) চলে আসবে। সেটি সঠিকভাবে পূরণ করে ভেরিফাই (Verify) বাটনে ক্লিক করতে হবে।
  • সব তথ্য ঠিক থাকলে রেজিস্ট্রেশন সফল (Successful) হবে এবং বাংলাদেশ রেলওয়ে নামে নতুন একটি পেজ আসবে। এখানে ইউজার (User) অটো লগ ইন (Log In) হয়ে যাবে।

টিকিট কেনার পদ্ধতি

  •  প্রথমে বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইটে (www.eticket.railway.gov.bd) প্রবেশ করতে হবে।
  •  অটো লগ ইন (Log In) না হয়ে থাকলে প্যানেলে ই-মেইল ঠিকানা (E-mail address) ও পাসওয়ার্ড (Password) পূরণ করে লগ ইন (Log In) বাটনে ক্লিক করতে হবে।
  • লগ ইনের পর যে পেজটি আসবে তাতে কাঙ্ক্ষিত ভ্রমণ তারিখ, প্রারম্ভিক স্টেশন, গন্তব্য স্টেশন, শ্রেণি পূরণ করে ফাইন্ড টিকিট (Find Ticket) বাটনে ক্লিক করতে হবে। পরের পেজে ট্রেনের নাম, সিট অ্যাভেলেবিলিটি (আসন আছে কি নেই) ও ট্রেন ছাড়ার সময় দেখাবে।
  • ট্রেন অনুযায়ী ভিউ সিটস (আসন দেখুন) বাটনে ক্লিক করে আসন খালি থাকার সাপেক্ষে পছন্দের আসন (seat) সিলেক্ট করে কন্টিনিউ পারচেজে (Continue Purchase) ক্লিক করতে হবে।
  • ভিসা (VISA) কার্ড, মাস্টার (MASTER) কার্ড কিংবা বিকাশে (bkash) পেমেন্ট করলে একটি ই-টিকিট অটো ডাউনলোড (Auto Download) হবে। পাশাপাশি যাত্রীর ই-মেইলে টিকিটের কপি চলে যাবে।
  • ই-মেইলের ইনবক্স থেকে টিকিটটি প্রিন্ট করে ফটো আইডিসহ ই-টিকেট প্রদত্ত টিকিট প্রিন্ট ইনফরমেশন (Ticket Print Information) দিয়ে সংশ্লিষ্ট সোর্স স্টেশন থেকে যাত্রার আগে ছাপানো টিকিট সংগ্রহ করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *