গরম চা পানের সঙ্গে ধূমপান করছেন? জানেন কি বড় বিপদ ডেকে আনছেন

অতিরিক্ত চা খেলে কি হয়,দুধ চা এর ক্ষতিকর দিক,চা খাওয়ার নিয়ম,লিকার চা এর উপকারিতা,
খালি পেটে চা খেলে কি হয়,চা খেলে কি গ্যাস্ট্রিক হয়,চা এর উপকারিতা ও অপকারিতা,আদা চা এর উপকারিতা,

এক কাপ ধোঁয়া ওঠা চা বা কফির সঙ্গে একটা সিগারেট। ব্যস্ততার ফাঁকে অনেকেরই এভাবে কাটে। অথবা পাড়ার মোড়ে চায়ের ঠেকে প্রায়ই এমন চিত্র ধরা পড়ে। বিষয়টি ক্ষণিকের আরাম দিলেও আদপে নাকি বড় বিপদ ডেকে আনতে পারে আপনার শরীরে। সম্প্রতি হওয়া এক গবেষণা দাবি করছে, যাঁরা নিয়মিত ধূমপান বা মদ্যপান করেন, তাঁদের গরম চা খাওয়া এড়িয়ে যাওয়া উচিত।

ধূমপায়ী বা মদ্যপায়ীরা গরম চা খেলে, খাদ্যনালীর ক্যানসার হওয়ার ঝুঁকি কয়েক গুণ বেড়ে যায়। এমনিতেই যাঁরা মদ্যপান ও ধূমপান করেন, তাঁদের খাদ্যনালীতে ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কা থেকেই যায়। কিন্তু তার উপরে কেউ যদি এর সঙ্গে গরম চা (Hot tea) পান করতে থাকেন, তা হলে খাদ্যনালী ক্যানসারের ঝুঁকি আরও অনেকটা বেড়ে যায়।

চিনের ৩০ বছর থেকে ৭৯ বছরের ৪৫৬,১৫৫ জনের উপরে এই সমীক্ষা চালানো হয়। গবেষকরা বলেন, গরম ফুটন্ত চা (Hot tea) খাদ্যনালীর কোষগুলির মারাত্মক ক্ষতি করে। আর তার উপরে যদি সেই ব্যক্তি ধূমপান ও মদ্যপান করেন তাহলে ঝুঁকি আরও বেড়ে যায়। যাঁদের উপর সমীক্ষা চালানো হয়, তাঁদের কারও প্রথম দিকে ক্যানসার ছিল না। প্রত্যেকের উপর টানা ৯ বছর নজর রাখা হয়। এই গবেষণা চলাকালীনই ১৭৩১ জন ক্যানসারে আক্রান্ত হন। বিশেষ করে চিনে যেহেতু চা খাওয়ার প্রবণতা বেশি, তাই এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যাও বেশি।

চিনের বহু বাসিন্দাই ফ্লাস্কে করে চা নিয়ে যান অফিসে বা ক্রমক্ষেত্রে। ঘন ঘন চা (Hot tea) খাওয়া অভ্যেস তাঁদের। আর তার উপর ধূমপান ও মদ্যপান করলে খাদ্যনালীর ক্যানসারের আশঙ্কা বেড়ে যায়। এই দিকটির কথা মাথায় রেখেই চিকিৎসকরা অতিরিক্ত গরম চা খেতে না করছেন। বিশেষ করে যাঁরা ধূমপান ও মদ্যপান করেন তাঁদের অনেকটাই ঝুঁকি বেশি।

Source (in news18.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *